০২,ডিসেম্বর'২০১৭











মহসিন সাদেক, লাখাই থেকে \ কৃষি ভান্ডার খ্যাত লাখাই উপজেলাবাসির দুঃখ খোয়াই নদী। প্রায় প্রতি বছরই বর্ষা মৌসুমে অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলের কারণে বাধ ভেঙ্গে তলিয়ে যায় লাখাইর নি¤œাঞ্চল। এরপর খোয়াই নদীতে পানি থাকলেও নি¤œাঞ্চলে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। ফলে সময় মত বীজতলা তৈরী করতে না পারায় হুমকীর মুখে পড়েন বোরো চাষীরা। এবারো এর ব্যতিক্রম হয়নি। অগ্রহায়ন মাস চলে যাচ্ছে। তারপরও বীজতলা তৈরি করা সম্ভব হচ্ছে না। আগামী বোরো মৌসুমের জন্য হালিচারা উৎপাদন এখন দুঃস্বপ্ন হয়ে পড়েছে। এতে শংকিত হয়ে পড়েছেন কৃষকরা। অকাল বন্যায় উপজেলার বুলøা ইউনিয়ন ও লাখাই ইউনিয়নসহ সকল ইউনিয়নের বি¯Íীর্ণ ফসলের মাঠে বোরো ধানের ব্যাপক ÿতি হয়। কার্যত খোয়াই নদীর গতিপথ লাখাইর উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় বুলøা ইউনিয়ন ও লাখাই ইউনিয়নের নি¤œাঞ্চলের হাওরগুলোতে জলাবদ্ধতা বিরাজ করছে। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গরাইন্যা, চাইরা, ইশানলেংগর, হাইতোলা, বিলখেইত্যা, লালা হাওর, বলাকান্দি হাওর, মেদিবিল, হিংরা, কালাকান্দি, দিঘলী, মাঝ বাউলী, পাটি বিল, বারচর, চন্দ্রপুর হাওর, মরাকান্দি, ভাটি বাগাইরা, বোয়াবিল, কিউরি, ইইন্যা কৈইয়াবিলের হাওরের জমিতে এখনও জলাবদ্ধতা রয়েছে। ঝালখালীর খোয়াই বাধের ¯øুইচ গেইটের সামন ইতিমধ্যে ভরাট হয়ে গেছে। চন্দ্রপুরের কৃষক বিজয় দাশ জানান, আমাদের গ্রামের পুর্ব পাশে ভেঙ্গে যাওয়া বাধ এখনই পানি প্রবাহ বন্ধ না করলে গ্রামের চন্দ্রপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মসজিদ ভাঙ্গনের হুমকীর পড়বে। এছাড়া ভরপুর্নী গ্রামের মশফিকুর জানান, আমরা এখনও বীজতলা তৈরী করতে পারিনি। অন্যন্য বছর এ সময়ে বীজতলার কাজ প্রায় শেষ হয়ে যায়। কাটাইয়া গ্রামের মহিউদ্দিন, মাদনা গ্রামের ইকবাল হোসেন, ভবানীপুরের সুনীল দাশ জানান, শুনেছি খোয়াইর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাধ মেরামত করা হবে, তা জেনে খুশি। হেলারকান্দি চন্দ্রপুর অংশে ভেঙ্গে যাওয়া বাধ স্থায়ীভাবে যথাসময়ে দিতে না পারলে তা কোন কাজেই আসবে না বলে তিনি আশংকা প্রকাশ করেন। এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম জানান, এ বছর লাখাইয়ে ইরি বোরো চাষের লÿ্যমাত্রা ১১৩০০ হেক্টর। এর মধ্যে বুলøা ইউনিয়নে ৩৫০০ হেক্টর। বন্যা পরবর্তী জলাবদ্ধতা ও বীজ তলা সংকট নিয়ে অবহিত আছেন জানিয়ে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি এবং কৃষকদের ইতিমধ্যে বিকল্প বীজতলা তৈরীর পরার্মশ দিয়েছি। এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ড হবিগঞ্জ এর শাখা কর্মকর্তা ও পাউবো কাবিটা লাখাই প্রকল্পের সদস্য সবীর রাতুল বণিক জানান, খোয়াইর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাধের হেলার কান্তির অংশে ভেঙ্গে যাওয়া বাধ পুনঃ মেরামতের জন্য চলতি অর্থ বছরে ২ কোটি ৯৭ লাখ টাকা বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে। সংশিøষ্ট ঠিকাদার এ বছর যথাসময়ে বাধের কাজ সম্পন্ন করবেন। তিনি আরো জানান, গত ২২ নভেম্বর কাবিকা প্রকল্পের লাখাই কমিটির সভাপতি ইউএনওসহ সদস্যবৃন্দ খোয়াই বাধের হেলার কান্দি থেকে কাটাইয়া পরিদর্শন করে সংস্কারের জন্য কয়েকটি স্পট শনাক্ত করে সমীক্ষা চালাচ্ছেন। এছাড়াও সংস্কার নিয়ে বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Back



Editor & Publisher : Mohammed Shaban Miah
Daily Protidiner Bani, Commercial Area Hobigonj-3300, Bangladesh. Tel & Fax: 0831-53333, Mobile: 01711-782208 E-mail : protidinerbani@gmail.com
Copyright © 2010 Protidinerbani.com. All rights reserved.